প্রসূন আজাদ । মডেল, অভিনেত্রী ও পরিচালক

প্রসূন আজাদ হচ্ছেন একজন বাংলাদেশী মডেল, অভিনেত্রী এবং পরিচালক। তিনি ২০১২ সালে লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় তৃতীয় স্থান অর্জন করেন। ২০১৪ সালে সর্বনাশা ইয়াবা চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে তার চলচ্চিত্র শিল্পে অভিষেক ঘটে।

প্রসূন আজাদ । মডেল, অভিনেত্রী ও পরিচালক

প্রাথমিক জীবন

প্রসূন আজাদ ১৯৯৪ সালের ২৭ জুলাই আজরা আঞ্জুম প্রসূন হিসাবে বাংলাদেশের ময়মনসিংহের ফুলপুরে জন্মগ্রহণ করেন।তার বাবার নাম আজাদ হোসেন ও মায়ের নাম শাহানা আজাদ, দুজনেই পেশায় পুলিশ কর্মকর্তা। তিনি উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল থেকে এসএসসি সম্পন্ন করেন। তিনি ক্যামব্রিয়ান কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর বাণিজ্য বিভাগের ছাত্রী ছিলেন। পরে কলেজ পরিবর্তন করে রাজারবাগ পুলিশ লাইনে চলে আসেন।ছোটবেলায় তিনি নতুন কুঁড়িতে কাজ করেছেন।

কর্মজীবন

আজাদ লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের পূর্বে গিয়াস উদ্দিন সেলিমের অবগুণ্ঠন নাটকে রুবিনা চরিত্রে কাজ করার মাধ্যমে অভিনয় জগতে প্রবেশ করেন।প্রসূন আজাদ অভিনীত আলোচিত নাটক হচ্ছে সাজ্জাদ সুমন পরিচালিত ‘শহরের নতুন বালিকা’, অনিমেষ আইচের ‘একটি মৃত্যুর স্বপ্ন’ এবং চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত ‘টকেটিভ’ ইত্যাদি।প্রসূন বেশ কিছুদিন পরিচালক গিয়াস উদ্দিন সেলিমের সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন, এবং তার মনপুরা চলচ্চিত্রে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেন। ২০১৬ সালে কুহেলিকা চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তিনি পরিচালনায় অভিষেক ঘটান।

প্রসূন আজাদ । মডেল, অভিনেত্রী ও পরিচালক

২০১৮ সালে তিনি গানচিল মিউজিকের ব্যানারে জীবনের হিসেব শিরোনামে একটি সংগীত ভিডিওতে উপস্থিত হন।

সমালোচনা

২০১৬ সালের ডিসেম্বরে আজাদের উপর এক বছরের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ডিরেক্টর গিল্ডস। মূলত, স্বপ্ন সত্যি হতে পারে নামের একটি নাটকের চিত্রধারণকে কেন্দ্র করে অভিনেত্রী রোকেয়া প্রাচীর সঙ্গে প্রসূনের বাক-বিতন্ডা সৃষ্টি হয়, এবং পরবর্তীতে এই অভিযোগের ভিত্তিতে তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার দাবি ওঠে।ফলে টিভি নাটক নির্মাতাদের তিনটি সংগঠন প্রসূনকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে।

প্রসূন আজাদ । মডেল, অভিনেত্রী ও পরিচালক

ব্যক্তিগত জীবন

প্রসূন ২০১৬ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী মুহাইমিন সানকে বিয়ে করেন। পরবর্তীতে ২০১৮ সালের শুরুর দিকে তাদের বিচ্ছেদ ঘটে।

আরও দেখুনঃ

মন্তব্য করুন