আইরিন সুলতানা । বাঙালি অভিনেত্রী এবং মডেল

আইরিন সুলতানা হলেন বাংলাদেশী মডেল ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। ২০০৮ সালের ‘প্যান্টেনা ইউ গট দ্য লুক’ প্রতিযোগিতায় তিনি ‘সেরা হাসি’ পুরস্কার পাবার পর থেকে বিনোদন মাধ্যমে কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি দেশে এবং বিদেশে বহু র‍্যাম্প মডেলিং অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন।

তিনি চলচ্চিত্রে অভিষেক করেন, দেবাশীষ বিশ্বাস পরিচালিত ভালোবাসা জিন্দাবাদ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে, যা ২০১৩ সালের ৮ নভেম্বর মুক্তি পায়। এই সিনেমাটি বক্স অফিসে সাড়া জাগায়। তিনি ছয়টির বেশি সিনেমায় অভিনয়ের জন্যে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

আইরিন সুলতানা । বাঙালি অভিনেত্রী এবং মডেল

জন্ম ও শৈশব

আইরিন সুলতানা ১৯৮৮ সালের ৪ সেপ্টেম্বর যশোরে জন্মগ্রহন করেন।আইরিনের বাবা মতিয়ার রহমান একজন ব্যবসায়ী এবং মা শামসুন্নাহার গৃহিনী। পরিবারে তিন ভাইবোনের মধ্যে আইরিন সবার ছোট। আইরিন পড়াশোনা করেছেন নর্দান ইউনিভার্সিটিতে, অ্যাকাউন্টিং বিষয়ে বিবিএ। র‌্যাম্প মডেলিং এ টপ হওয়ার আগ্রহের পাশাপাশি ভালো চলচ্চিত্রে অভিনয় করে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছেন আইরিন।

ক্যারিয়ার

র‌্যাম্প মডেলিং এ খুব অল্প সময়েই জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ ছিল বলে সময় নিয়ে যত্ন করে প্রস্তুতি নিয়েছেন, নাচ শিখেছেন এবং তারপর অভিনয় শুরু করেছেন।

আইরিন সুলতানা । বাঙালি অভিনেত্রী এবং মডেল

এখন পর্যন্ত অনেকগুলো চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও কোনটি মুক্তির আলো দেখে নি। ভালোবাসা জিন্দাবাদ দিয়ে বড় পর্দায় হাজির হবেন আইরিন। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের আগে আইরিন টিভি নাটকে অভিনয় করেছেন। আশুতোষ সুজন পরিচালিত ‘ম্যানপাওয়ার’ তার অভিনীত প্রথম প্রচারিত নাটক। এছাড়া অভিনয় করেছেন আফসানা মিমি পরিচালিত ধারাবাহিক নাটক ‘পৌষ ফাগুনের পালা’, তানভীর হোসেন প্রবাল পরিচালিত ‘তবুও সংশয়’, আশুতোষ সুজন পরিচালিত ‘জলছবি’ ইত্যাদি। এছাড়া বিভিন্ন টিভি বিজ্ঞাপনেরও মডেল হয়েছেন আইরিন। ‘রবি’র তোমাকে দিয়ে কিছু হবে না’, ‘প্রাণ ডাল’, ‘জেনোসিস রিয়েল এস্টেট’, ‘আখতার ফার্নিচার’ এর মধ্যে অন্যতম।

‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’ সিনেমার মাধ্যমে রুপালি জগতে পা রাখেন। এরপর ‘ছেলেটি আবোলতাবোল মেয়েটি পাগল পাগল’, ‘এক পৃথিবী প্রেম’, ‘ইউটার্ন’, ‘মায়াবীনি’সহ বেশ কয়েকটি সিনেমায় কাজ করেছেন।তাঁর অভিনীত ‘গন্তব্য’ সিনেমাটি সর্বশেষ মুক্তি পেয়েছে। তাঁর সহশিল্পী ছিলেন ফেরদৌস।

আইরিন সুলতানা । বাঙালি অভিনেত্রী এবং মডেল

পুরস্কার এবং অর্জন

  • প্যান্টিং ইউ গট লুক ২০০৮ প্রতিযোগিতায় “সেরা হাসি” টাইটেল বিজয়ী
  • চতুর্থ রানার-আপ, বেল মডেলস ইন্টারনেট বিউটি কনটেস্ট জানুয়ারি ২০১১
  • পঞ্চম রানার-আপ, বেল মডেলস ইন্টারনেট বিউটি কনটেস্ট ডিসেম্বর ২০০৯
  • বায়োস্কোপ বর্ষ-সেরা ( সেরা চলচ্চিত্র অভিনেত্রী )
  • ২০১৩ বিনোদন-ধারা পারফরমেন্স অ্যাওয়ার্ড

আরও দেখুনঃ

মন্তব্য করুন